বাংলার কুসংস্কার:বাম কানের দুল আগে পড়তে নেই!!!
রেটিং দিন

আমাদের এই দেশের আনাচে-কানাচে অসংখ্য কুঃসংস্কার ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে।এগুলো আমাদের লোক সাহিত্যেরই অংশ বিশেষ।কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের ব্যপার এই যে এই কুঃসংস্কার গুলো সংগ্রহের চেষ্টা কেউ করছে না।আসুন আমরা সবাই মিলে এই কুঃসংস্কার গুলো একত্রিত করি।EduportalBD.com এই কুঃসংস্কার গুলো কে সংগ্রহ করার চেষ্টায় এগিয়ে এসেছে।একার পক্ষে এত গুলো সংগ্রহ করা অসম্ভব প্রায়।তাই আপনাদের সহায়তা আমাদের একান্ত কাম্য।আপনার জানা কোনো কুঃসংস্কার থাকলে আমাদের গ্রুপে পোস্ট করে বা আপনি নিজেও সাইটে পোস্ট করে জানাতে পারেন।আশা করি আমাদের এই প্রচেষ্টায় আপনাদের সমর্থন পাবো।
❗ আমাদের ফেসবুক গ্রুপঃ www.Facebook.com/Groups/EduportalBD


 

 

f041_dna_earrings_inuse

লৌকিক ব্যাখ্যা:কানের দুল মেয়েদের সাজগোজের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ।অতি বিলাসী নারীদের শখের কানের দুলের জ্বালায় হয়তো অনেকেরই কানে তালা দেয়ার জোগাড়।

তবে আমাদের এই কুসংস্কার বলছে, দুল যাই পড় না কেন, কোন সমস্যা নেই তবে ভুলেও বাম কানের দুল আগে পড় না।কারণ তাতে বেচারা স্বামীর উপর নাকি অমঙ্গল আসতে পারে।অবিবাহিত মেয়েদের জন্য ভবিষ্যৎ স্বামীর জন্য অমঙ্গল আগে থেকেই ঝুঁকে থেকে।

বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা:ভবিষ্যৎ আন্দাজের ব্যাপারে বিজ্ঞান শুরু থেকেই নীরব।দুল বাম কানের অথবা ডান কানের যেটাই আগে পড়ুন না কেন, সৃষ্টিকর্তার লিখিত ভবিষ্যৎ কি বদলানো যায়?